সংবাদ শিরোনাম
Home / ক্রাইম প্রতিদিন / আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লো পুলিশ কনস্টেবল

আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লো পুলিশ কনস্টেবল

ক্রাইম প্রতিদিন, ঝালকাঠি : ফাকা রেস্টুরেন্টে প্রেম করতে গিয়ে বেরসিক জনতার হাতে ধরা পড়া ঝালকাঠির নলছিটি থানার কম্পিউটার অপারেটর কনস্টেবল নাজমুল হাসান সুজন বিয়ে করতে চলেছেন। কনে কিন্তু সেই মেয়েটিই।

সোমবার (২ এপ্রিল) এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চি করেছেন নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল হালিম তালুকদার।

তিনি বলেন, তাদের ব্যাপারে স্থানীয়দের অভিযোগ সত্য নয়। ঘটনার আগে থেকেই ওই পরিবারের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে কথা বার্তা চলছিলো। সৌজন্যতার খাতিরে সেদিন তারা রেস্টেুরেন্টে কফি খেতে গিয়েছিলেন। সেখানে আরও অনেকেই ছিল বলে দাবি করেন তিনি।

তবে স্থানীয়রা জানায়, এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়ের (১৬) সঙ্গে বছর খানেক আগে নাজমুল হাসানের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার দুপুরে প্রেমিকার সঙ্গে ডেটিং করতে অপসোরা ফুড গার্ডেন নামে একটি রেস্টুরেন্টে যান নাজমুল। আর তা টের পেয়ে যায় স্থানীয়রা।

ওই সময়ে রেস্টুরেন্টে লোকজনের আসা-যাওয়া না দেখে সন্দেহজনক মনে হয় তাদের কাছে। অবশেষে দু’জনকে অনেকটা ‘আপত্তিকর অবস্থায়’ ধরে ফেলেন তারা। খবর পেয়ে নলছিটি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজান ঘটনাস্থলে পৌঁছে কনস্টেবল নাজমুলকে থানায় নিয়ে যান এবং মেয়েটিকে বাসায় পাঠিয়ে দেন।

ধরা পড়ার পর মেয়েটি জানান, নাজমুল নামের ওই পুলিশ সদস্যের সঙ্গে তার কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। বরং নামজুল তাকে বিয়ে করার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দিয়েছেন। ঘটনার দিন বাসা থেকে বের হতে দেখে নাজমুল তার পিছু নিয়ে ওই রেস্টুরেন্টে আসেন।

তবে ঘটনার দিনই ওই মেয়েকে বিয়ের করতে চান বলে জানিয়েছিলেন পুলিশ কনস্টেবল নাজমুল। তিনি বলেন, মেয়েটিকে তিনি বিয়ে করতে চান। কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা বলার জন্য তাকে ওই রেস্টুরেন্টে ডেকে আনা হয়েছিল।-বিডি২৪লাইভ

Print Friendly, PDF & Email

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে