Home / সারাদেশ / সাহায্যের জন্য আবেদন / আরাফাতের চিকিৎসায় সাহায্যের জন্য মায়ের আকুতি

আরাফাতের চিকিৎসায় সাহায্যের জন্য মায়ের আকুতি

ক্রাইম প্রতিদিন, এস.এম.নুর আলম, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে উপজেলায় আব্দুলপুর ইউনিয়নে পশু হাসপাতাল পাড়া গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে আরাফাত হোসেন ৭ বছর বয়সে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

নিয়ম করেই প্রতিদিন উত্তর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুলে যেত শিশুটি। প্রতিদিন বিকেলেই তার হৈ হুল্লুড়ে মুখরিত হয়ে উঠতো বাড়ির উঠোন। কিন্তু সেই আরাফাত এখন চিকিৎসার অভাবে বাড়িতে মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছে সে। এতে পুরো পরিবারের নেমে এসেছে অমানিশার অন্ধকার। শিশু পুত্রের চিকিৎসার জন্য মায়ের আকুতি। বাড়ি ঘরে নেই খাবার, নেই বসবাসের মত আসবাবপত্র না আছে শিশু পুত্রে চিকিৎসা জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ। কি দিয়ে পুত্রের চিকিৎসা করাবে তা নিয়ে মায়ের ভাবনা। কোথাও কোন ব্যবস্থা করতে না পেরে মানুষের কাছে সাহায্যের জন্য হাত বাড়াতে বাধ্য আজ। আরাফাতের হার্ট ফুটো রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দরিদ্র মা তার সামনে ছেলের মৃত্যু হবে এ চিন্তায় দিশেহারা। একেত গরীব, তার উপর আরাফাতের চিকিৎসা আর সংসার চালাতে হিমসীম খাচ্ছে। তার উপরে ছেলের এ অবস্থা নিয়ে কি করবে ভেবে পাচ্ছেনা। অথচ দরিদ্র ভ্যান চালক পিতার উপার্জনে সংসার চালানোই দায় তার উপর চিকিৎসা করানো সম্ভব নয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার চিকিৎসা জন্য ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার প্রয়োজন। অসহায় মাতার পক্ষে এক হাজার টাকা খরচ করাই কঠিন। সেখানে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা কিভাবে সংগ্রহ করবে এ নিয়ে তিনি চিন্তায় নিজেই রোগী হয়ে পড়ছেন। ছেলের চিকিৎসা জন্য কোন ভাবেই তার পক্ষে টাকা সংগ্রহ করা সম্ভব না হওয়ায় সমাজের ধনবান ও দয়াবান ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে সাহায্যের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। সামান্য সহযোগিতার হাত প্রসারিত করলে আমার শিশু সন্তানটি বাঁচবে। আর দশজনের মত হেসে খেলে বেড়ার সুযোগ পাবে। এম আব্দুর রহিম দিনাজপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করলে সেখানের চিকিৎসকেরা জানান, শিশুটি শরীরের ভিতরে হার্ট ফুটো হয়েছে। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী আরাফাতের চিকিৎসায় সুস্থ করতে প্রায় ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার প্রয়োজন জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

আরাফাতের মা রেজিনা বেগম জানান, আমার নাড়ি ছেঁড়া ধন মৃত্যুর সাথে লড়ছে। কিন্তু আমি কিছুই করতে পারছি না। আরাফাতকে বাঁচাতে এগিয়ে আসতে সমাজের বিবেকবান মানুষদের কাছে আকুতি জানিয়েছেন তিনি। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা-মো: মতিউর রহমান, ডাচ-বাংলা- ০১৭৬১৪১৩৩৭২-৬ বিকাশ নম্বর-০১৭৬১৪১৩৩৭২ চিরিরবন্দর, দিনাজপুর।

Print Friendly, PDF & Email

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 2
    Shares
x

Check Also

ফারুক খানের জন্মদিন পালন করেছেন ঢাকাস্থ গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদ

ক্রাইম প্রতিদিন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক ...