সংবাদ শিরোনাম
Home / খেলাধুলা / ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বিশ্ব একাদশের পরাজয়

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বিশ্ব একাদশের পরাজয়

ক্রাইম প্রতিদিন: ‘মোর দ্যান অ্যা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ’ ব্যানারে খেলা প্রদর্শনীমূলক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আইসিসি বিশ্ব একাদশকে পাত্তাই দিলো না ক্যারিবীয়রা। ছন্নছাড়া ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে পরাজয়বরণ করতে হয় তাদের।

ইংল্যান্ডের ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত লর্ডস স্টেডিয়ামে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বিশ্ব একাদশের অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। অধিনায়কের সিদ্ধান্তের সুবিচার করতে পারেনি বোলাররা। শুরু থেকেই মারমুখি ছিলেন এভিন লুইস। অপর প্রান্তে দাঁড়িয়ে তা দেখছিলেন ক্রিকেটের পাওয়ার হাউজ ক্রিস গেইল।

প্রথম ৮ ওভারের দলীয় স্কোরে ৭৫ রান তোলেন ক্যারিবীয় এ দুই ওপেনার। এর মধ্যে লুইসেরই সংগ্রহ ২৬ বলে ৫৮ রানের ঝকঝকে ইনিংস। যেখানে রয়েছে ৫টি ছয় ও সমান সংখ্যক চার। এভিন লুইস আরো মারমুখী হওয়ার আগেই তাকে ফেরত পাঠান নতুন স্পিন সেনসেশন রশিদ খান।

এরপর একাদশতম ওভারের প্রথম বলে পাকিস্তানের শোয়েব মালিকের শিকারে পরিণত হন ক্রিস গেইল। ৭৫ রানের উদ্বোধনী জুটির পর মারলন স্যামুয়েলস, দীনেশ রামদিন এবং আন্দ্রে রাসেলের ব্যাটে ২০০ রানের সংগ্রহ পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২টি চার এবং ৪টি ছয়ের সাহায্যে ২২ বলে ৪৩ রান করে আউট হন স্যামুয়েলস। ৩টি করে চার এবং ছয়ের সাহায্যে ২৫ বলে ৪৪ রান করে অপরাজিত থাকেন রামদিন। রাসেলের ব্যাট থেকে আসে ১০ বলে ২১ রানের ক্যামিও ইনিংস।

বিশ্ব একাদশের পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন রশিদ খান। তবে ৪ ওভার থেকে ৪৮ রান খরচ করেন এই আফগান তরুণ। অন্য ২ উইকেট নেন দুই পাকিস্তানি শোয়েব মালিক এবং শহিদ আফ্রিদি।

২০০ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মনে হচ্ছিল যেনো তারা ক্রিকেট খেলাই ভুলে গেছে। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে এভিন লুইসের দুর্দান্ত এক ক্যাচে সাজঘরে ফেরেন বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল। ৮ বল খেলে মাত্র ২ রান করেন তামিম। এরপর রানের খাতা খুলতে ব্যর্থ হন লুক রনকি এবং দীনেশ কার্তিক। স্যাম বিলিংসের ব্যাট থেকে আসে ৪ রান। ৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চোরাবালিতে আটকা পড়ে আফ্রিদির শিষ্যরা।

সেখান থেকে ইনিংসের হাল ধরেন লংকান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা। মাত্র ৩৭ বলে ৭ চার এবং ৩ ছয়ের সাহায্যে ৬১ রান করেন পেরেরা। তার ইনিংসেই মূলত দলীয় স্কোর শতক পেরোয় বিশ্ব একাদশ। এছাড়া শোয়েব মালিক ১২ এবং শহিদ আফ্রিদি করেন ১১ রান। ইনজুরির কারণে টাইমাল মিলস ব্যাট করতে না নামলে ১৬.৪ ওভারে ১২৭ রানে নবম উইকেটের পতনেই শেষ হয়ে যায় ম্যাচ।

৭২ রানের জয়ে ক্যারিবীয়দের পক্ষে বল হাতে কেসরিক উইলিয়ামস ৩টি উইকেট নেন। অন্যদিকে স্যামুয়্যেল বাদ্রী ও আন্দ্রে রাসেল ২টি এবং ক্যামো পাউল ও অধিনায়ক ব্র্যাথওয়েট ১টি করে উইকেট লাভ করেন। ৫৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলা এভিন লুইস জেতেন ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার।

এই ম্যাচ থেকে অর্জিত সকল অর্থ ব্যয় করা হবে গত বছর ক্যারিবীয় অঞ্চলে ঘুর্ণিঝড়ের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া সকল স্টেডিয়ামের পুনর্বাসনের কাজে।

Print Friendly, PDF & Email

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে