Home / সারাদেশ / গফরগাঁওয়ে নির্মাণাধীন অডিটরিয়ামের ছাদ ধসে নিহত ১, আহত ৮

গফরগাঁওয়ে নির্মাণাধীন অডিটরিয়ামের ছাদ ধসে নিহত ১, আহত ৮

ক্রাইম প্রতিদিন, শফিউর রহমান সেলিম, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জেলা পরিষদের নির্মাণাধীন অডিটরিযামের ২য় তলার ছাদের ঢালাই করার সময় ধসে পড়ে এক নির্মাণ শ্রমিক নিহত হয়েছে। এসময় আরো ৮ শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে আজ শুক্রবার সকাল ১০টার পৌর এলাকার কলেজ রোডে জেলা পরিষদ ডাকবাংলায় নির্মাণাধীন ভবনে ।

প্রত্যক্ষদর্শী পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে দশটার সময় নির্মানাধীন অডিটরিয়ামের ছাদ ঢালাইয়ের কাজ চলছিল। অর্ধশতাধিক নির্মাণ শ্রমিক ছাদ ঢালাইয়ের কাজে অংশ নেয় । এসময় সেন্টারিং ভেঙ্গে মুহুর্তেই ভবনটির ঢালাইকৃত ছাদ ধ্বসে পড়ে। নির্মাণ সামগ্রীর নিচে চাপা পড়ে ৯জন শ্রমিক আহত হয়। নির্মাণ শ্রমিক শাহজাহানের শরীরে রড বিদ্ধ হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তার বাড়ি নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার ছল্লাপুর গ্রামে।

এলাকাবাসী ও অন্য শ্রমিকরা দ্রুত আহত শ্রমিকদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে নাদিম এর অবস্থার অবনতি হলে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত শ্রমিকরা হলো আনোয়ার (২২), সাজিম (১৮), আজাহার (১৭), কাঞ্চন (২০) আলমগীর (২৪), আজহারুল (১৯), নজরুল (৩১), নাদিম (২৮)। এদিকে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন,নির্মাণাধীন অডিটরিয়ামে কোন ধরনের পার্শ্বনিরাপত্তা ব্যবস্থা না করা এবং ভবন নির্মানে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় এ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে ।

ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের অর্থায়নে ৬ কোটি ৭২ লাখ টাকা ব্যয়ে অডিটরিয়ামটি নির্মানের কাজ পায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স রতন এন্টারপ্রাইজ । শুক্রবার ভবনটির সামনের অংশের ছাদের ঢালাই কাজ করার সময় এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিন্ম মানের নির্মাণ সামগ্রী ও কাজে গাফিলতির জন্য এ দূঘটনা ঘটেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারনা। খোঁজ নিয়ে জানা যায় ভবন নির্মাণে সেন্টারিংয়ে বাঁশ ও কাঠ ব্যবহারের নিষেধ থাকলেও ভবনটি তদারকির দায়িত্ব প্রাপ্তদের যোগসাজসে অতিরিক্ত মুনাফার আশায় নিম্ন মানের বাঁশ ও কাঠ ব্যবহার করা হয়েছে। নিন্মমানের বাঁশ , কাঠ ঢালাইয়ের ও শ্রমিকের লোড সামলাতে না পারায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে ।ঘটনার পর পরই ঠিকাদারের প্রতিনিধিরা পালিয়ে যায়। জেলা পরিষদের উপসহকারী আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, সেন্টারিং ভাল না থাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জেলা পরিষদের প্রকৌশলী মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, ঠিকাদারকে বাঁশের সেন্টারিং দিয়ে কাজ করতে নিষেধ করা হয় এবং শুক্রবার সকালে উপ সহকারী প্রকৌশলীকে পাঠিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার আদেশ দেওয়া হয় । তা অমান্য করে ঠিকাদারের প্রতিনিধিরা ছাদ ঢালাইয়ের কাজ করলে এ দূর্ঘটনা ঘটে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. শামীম রহমান বলেন, আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে । অত্যন্ত হৃদয় বিদারক এই ঘটনার তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রায়হানুল ইসলাম বলেন ,ঘটনার পরপরই আমি ঘটনা স্থল গিয়ে হতাহতদের দ্রুত উদ্ধারের ব্যাবস্থা করি। ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করে দেখা হচ্ছে । তবে প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ও রড ব্যাহার করায় এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে ।

Print Friendly, PDF & Email

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 18
    Shares
x

Check Also

ফরিদগঞ্জে বিদ্যালয়ের ওয়াশব্লক নির্মাণে অনিয়ম!

ক্রাইম প্রতিদিন, আতাউর রহমান সোহাগ, ফরিদগঞ্জ : ফরিদগঞ্জ বালিকা ...