সংবাদ শিরোনাম
Home / সারাদেশ / ঘাটাইলের ওসির নম্বর ‘ক্লোন’ করে প্রতারণা
ছবি: নিখোঁজ ছাত্র ফাহাদ (ফাইল ছবি)

ঘাটাইলের ওসির নম্বর ‘ক্লোন’ করে প্রতারণা

ক্রাইম প্রতিদিন, ঘাটাইল : ঢাকায় বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের চার দিনেও হদিস মিলছে না। তবে ওই ছাত্রের মোবাইল ফোন থেকে ক্ষুদেবার্তায় অন্য ভাইদের হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। এদিকে নিখোঁজ ফাহাদ অসুস্থ বলে ঘাটাইল থানার ওসির নম্বর ক্লোন করে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারকচক্র। এমন সব ঘটনা নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে গোটা পরিবারের সদস্যরা।

নিখোঁজ ছাত্র আলী আশফাকুল হাসান ফাহাদ (২৩) কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার যশোদল মধ্যপাড়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষক মো. আরশাদ আলীর ছেলে ও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজির মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ষষ্ঠ সেমিস্টারের ছাত্র।

বুধবার সন্ধ্যায় ফাহাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে তার ভগ্নিপতি হেলাল উদ্দিন নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত রোববার সকালে রাজধানীর মিরপুরের পশ্চিম শেওড়াপাড়া এলাকার বাসা থেকে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন। নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের বড় ভাই স্থপতি আলী নাসের জামীল ঘটনার দিন রাতেই মিরপুর মডেল থানায় এ বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

নিখোঁজ ছাত্রের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, একবার নিখোঁজ ছাত্রের মোবাইল ব্যবহার করে ক্ষুদেবার্তা পাঠিয়ে অন্য দুই ভাইকে জীবননাশের হুমকি দেয়া হয়েছে।

এছাড়া দ্বিতীয়বার টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার ওসির নম্বর থেকে ফোন দিয়ে ফাহাদ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি এমন তথ্য দিয়ে তার চিকিৎসার কথা বলে প্রতারণা করে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার নাটকীয় ঘটনা ঘটেছে।

পরবর্তীতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতায় ওই নম্বর ট্র্যাকিং করে জানা যায়, ঘাটাইল থানার ওসির নম্বর ‘ক্লোন’ করা ওই নম্বরটির অবস্থান খুলনায়।

কোনো প্রতারকচক্র চিকিৎসার গল্প সাজিয়ে ফাহাদের স্বজনদের কাছ থেকে ওসির নাম করে ওই টাকা নিয়ে গেছে।

মিরপুর মডেল থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, নিখোঁজ আলী আশফাকুল হাসান ফাহাদের সন্ধানে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। একই সময় তিনি একটি প্রতারকচক্র কর্তৃক ঘাটাইল থানার ওসির নম্বর ‘ক্লোন’ করে ফাহাদের স্বজনদের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার ঘটনাটিও নিশ্চিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email