শিরোনাম

শীর্ষ নেতাদের বেছে বেছে খুনের ছক দাউদ ইব্রাহিমের

ক্রাইম প্রতিদিন, ডেস্ক : এবার শীর্ষ নেতাদের বেছে বেছে খুন করার ছক কষেছেন ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেড মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিম। এমনটাই দাবি করেছে ভারতের গোয়েন্দারা।

কলকাতা ও মুম্বাই পুলিশের যৌথ তদন্তকারী দলের দাবি, আত্মঘাতী হামলা চালিয়ে নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে হত্যা করে ভারতে অশান্তি পাকানোর ছক করছে পাকিস্তান। আর সেই কাজে ফের ‘ডি-কোম্পানির’ ওপরই ভরসা পাকিস্তানের। ডি-কোম্পানিটির কর্ণধার দাউদ ইব্রাহিম।

মুম্বাইতে ফয়সল মির্জা নামে এক যুবককে গ্রেফতার পর জিজ্ঞাসাবাদে ওইসব তথ্য দিয়েছে বলে জানায় গোয়েন্দারা।

গত শুক্রবার কলকাতা পুলিশের সহযোগিতায় ফয়সলকে গ্রেফতার করে মুম্বাই পুলিশ।

ভারতের গোয়েন্দাদের দাবি- শুধু দাউদ নয়, ইন্ডিয়ান মুজাহিদীন এবং খালিস্তান লিবারেশন ফোর্সের মতো সংগঠনকে কাজে লাগিয়ে ভারতে সন্ত্রাসের জাল ছড়ানোর চেষ্টায় পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই।

গ্রেফতারকৃত ফয়সল মুম্বাইয়ের যোগেশ্বরী এলাকার বাসিন্দা। পেশায় সে ইলেকট্রিশিয়ান। সে পাকিস্তানে জঙ্গি প্রশিক্ষণ নিতে যাচ্ছিল। তবে যাওয়ার সময় পরিবারকে সে বলেছিল, দুবাইয়ের শারজা যাচ্ছে চাকরির খোঁজে।

তদন্তকারীদের দাবি, গুজরাটে একটি বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত ফারুক দাবেদিওয়ালার সাহায্যেই পাকিস্তানে পৌঁছায় ফয়সল। মুম্বাই পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখার এক কর্মকর্তা জানান, ফারুক দীর্ঘদিন ধরে দাউদের ঘনিষ্ঠ হিসেবে কাজ করছে। এবং ফারুক গ্রেফতারকৃত ফয়সলের সম্পর্কে চাচা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে ফয়সল জানিয়েছে, করাচিতে প্রথমে তাকে ইন্ডিয়ান মুজাহিদীনের শীর্ষ নেতা আমির রেজা খানের কাছে রাখা হয়। আমির তাকে মুরিদকেতে লস্কর-ই-তৈবা-র সদর দফতরে পৌঁছে দেয়। সেখানেই লস্কর শিবিরে দুই সপ্তাহ ধরে অস্ত্র ও বিস্ফোরক প্রশিক্ষণ দিয়ে আত্মঘাতী হামলা করার জন্য তৈরি করা হয় ফয়সলকে।

ভারতের গোয়েন্দাদের দাবি, পাকিস্তানে বসেই ছক করা হয় ভারতের কয়েকজন শীর্ষ নেতাকে হত্যা করার।

কলকাতা পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার দাবি, দেশের এক শীর্ষ নেতার ওপর হামলা করার ছক চূড়ান্ত করে ফেলেছিল এরা। শেষ মুহূর্তে সেই ছক বানচাল করা হয়। সূত্র: আনন্দবাজার।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 32
    Shares
x

Check Also

এফবিআইর তালিকায় বিপজ্জনক ব্যক্তি হিসেবে তারেক রহমানের নাম

ক্রাইম প্রতিদিন, ডেস্ক : বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক ...