Home / এক্সক্লুসিভ / পেটের নাড়ি, ভুড়ি, কলিজা, বের হওয়া অবস্থায় স্বজনদের হাতে প্যাকেটজাত নবজাতক

পেটের নাড়ি, ভুড়ি, কলিজা, বের হওয়া অবস্থায় স্বজনদের হাতে প্যাকেটজাত নবজাতক

ক্রাইম প্রতিদিন, আনিছুর রহমান সুজন, ফরিদগঞ্জ : সিজারের পর পরই হাসপাতালে কর্মকর্তারা শিশুটির মৃত জন্ম হয়েছে, তাই দ্রুত বাড়িতে নিয়ে যান । এই কথা শুনে নবজাতকের পরিবার শিশুটির মাকে হাসপাতালে রেখে শিশুটিকে প্যাকেটজাত অবস্থায় বাড়িতে নিয়ে আসে। সকালে শিশুটিকে দাপন করার জন্য প্যাকেট খুললে দেখতে পায় ভিন্ন চিত্র। নবজাতকের পেটের নাড়ি ভুড়ি ও কলিজা বের হওয়া। পাশে পড়ে রয়েছে সিজারের কাজে ব্যবহৃত কাচিসহ আনুসাঙ্গিক যন্ত্রপাতি। ভুক্তভোগীদের দাবী ভুল চিকিৎসার কারণে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলা সদরের সেন্ট্রাল হাসপাতালে সিজার করার সময় এই ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে চাঁদপুর পুলিশ সুপার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নবজাতক শিশুটির বাড়ি উপজেলার পাইকপাড়া দক্ষিন ইউনিয়নের পশ্চিম দায়চারা গ্রামে।

নবজাতকের নানী সাজেদা বেগম ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, তার মেয়ে খাদিজা (২০) এর প্রসব বেদনা উঠলে বুধবার রাতে প্রথমে সিনিয়র ভিজিটর শামীমা ইসলামের কাছে নিলে তিনি আল্ট্রাসনোগ্রাফি করার জন্য সেন্ট্রাল হাসপাতালে পাঠায়। রোগীর অবস্থা গুরুতর বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দ্রুত সিজারের পরামর্শ দেয়। পরে রাত ১১টায় খাদিজার সিজারিয়ান অপারেশন হয়।

হাসপাতালের গাইনী চিকিৎসক ডা: মাহমুদার সিজারিয়ান অপারেশন করেন বলে সাজেদা বেগম ক্রাইম প্রতিদিনকে জানান। সিজারিয়ান অপারেশন শেষে হাসপাতালে কর্মকর্তারা শিশুটি মৃত ভুমিষ্ট হয়েছে বলে জানিয়ে প্যাকেটজাত অবস্থায় শিশুটির লাশ দ্রুত তাদের কাছে দিয়ে বাড়ি নিয়ে যেতে বলেন। সকালে শিশুটিকে দাফন করার জন্য প্যাকেট খুললে এই অবস্থা দেখতে পান। পরে তারা শিশুটিকে ফরিদগঞ্জ থানায় নিয়ে আসেন।

এব্যাপারে সেন্ট্রাল হাসাপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেলোয়ার হোসেন বেলাল ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, রাতে কি হয়েছে তা তিনি জানেন না। সকালে এসে তিনি ঘটনা জানতে পারেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: জাহাঙ্গীর আলম শিপন ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, শিশুটি জন্ম হওয়ার সময় পরির্পূণতা নিয়ে আসে নি। তার পেটের ওয়াল ছিল না। ফলে পেটের ভিতরের সব কিছু বের হয়ে গেছে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি শাহ্ আলম ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের হচ্ছে।

চাঁদপুর পুলিশ সুপার সামছুন্নাহার ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, শিশু মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে তিলি ঘটনাস্থলে এসেছেন। অপরাধ হয়ে থাকলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 109
    Shares