Home / সম্পাদকীয় / ভালোবাসা দিবস : নীরবে ধর্ষিত হয় নারীরা!

ভালোবাসা দিবস : নীরবে ধর্ষিত হয় নারীরা!

ক্রাইম প্রতিদিন : আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারী, ভালোবাসা দিবস, এই দিনে ভালোবাসার নাম করে নীরবে ধর্ষিত হচ্ছে বাংলাদেশের নারীরা! পার্ক গুলো যেন হয়ে উঠে বেড রুম। আর আবাসিক হোটেল সেতো বাসর রাতকে ছাড়িয়ে যায়।

প্রেমের ফাঁদে ফেলে যদি একবার বিছানায় নিয়ে যাওয়া যায়। সেইবারই মোবাইলে ছবি ধারন। আর যদি প্রেমিকা ছবি তুলতে না দেয়, তাহলে প্রেমিক বলে জান তোমাকে যখন মনে পড়বে, আমি তখন দেখব এবং পরে ডিলেট করে দেবো। এগুলো কাউকে দেখাব না কারণ তুমি আমার জান।

এই কথাগুলো শুনে প্রেমিকা ভাবে না জানি ও আমাকে কত ভালবাসে। আমার সৃতি নিয়ে থাকতে চায়, থাক না, কি হবে, ঐ তো দেখবে। ও তো আমাকেই ভালোবাসে, ও তো আমাকেই বিয়ে করবে।

তারপর অনেক কিছু, ছবি বা মোবাইল ক্যামরায় ভিডিও দৃশ্য ধারণ হয় সম্মতিতেই। ব্যাচ হয়ে গেলো। এরপরই আসল খেলা শুরু হয়ে যায় প্রেমিকের।

দুইদিন পরপর প্রেমিক আবারও অনৈতিক প্রস্তাব দেয়। প্রেমিকা রাজি না। প্রেমিকের সরাসরি চলে হুমকি, রাজি না হলে সব ফাঁস। কি আর করা বাধ্য হয়ে আবারও শরীর বিসর্জন।

আপনারা কল্পনা করতে পারবেন না কত মেয়ে এইভাবে ধর্ষিত হচ্ছে। ভেবে দেখুন তো আমরা কতটুকু পেরেছি, আমাদের মা বোনকে রক্ষা করতে।

এখানেই শেষ নয়, অনেক কুলাঙ্গার আবার মেয়েদের পরিবার থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাঁতিয়ে নিচ্ছে। শুধু সন্মানের জন্য নীরবে এইসব সহ্য করছে তারা। আর যেই সব মেয়েরা একবার শরীর বিসর্জন দেওয়ার পরও টাকা কিংবা শরীর বিসর্জন দিতে অস্বীকৃতি জানায় তাদের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও চিত্র মানুষের হাতে চলে যাচ্ছে। লজ্জাকর পরিস্থিতি তে অনেক বোন নীরবে আত্মহননের পথ বেছে নিচ্ছে।

আসুন আমরা এইসব অপ্রিতিকর ঘটনা থেকে আমাদের মা বোনকে রক্ষা করতে একটু সচেতন হই। একমাত্র আমাদের সচেতনাই পারে অপরাধ মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে।

এ জেড এম মাইনুল ইসলাম, সম্পাদক ও প্রকাশক : ক্রাইম প্রতিদিন (crimeprotidin.com), সভাপতি : অপরাধ মুক্ত বাংলাদেশ চাই

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 1.2K
    Shares
x

Check Also

গোপালগঞ্জে চাচা কর্তৃক ৪র্থ শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী ধর্ষন

ক্রাইম প্রতিদিন, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়ায় প্রাইভেট ...