সংবাদ শিরোনাম
Home / সারাদেশ / সেতু নেই, পাড়াপাড়ের একমাত্র ভরসা নৌকা, ভূগান্তিতে লাখো মানুষ

সেতু নেই, পাড়াপাড়ের একমাত্র ভরসা নৌকা, ভূগান্তিতে লাখো মানুষ

ক্রাইম প্রতিদিন, মোঃ খালেদ বিন ফিরোজ, নওগাঁ : সেতু নেই নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার বেদলা, পালশা, তেবারিয়া ও পার্শ্ববর্তী বগুড়ার আদমদীঘির উপজেলার কয়েটি গ্রামসহ ২৫ গ্রামের প্রায় লাখো মানুষের পাড়াপাড়ের একমাত্র ভরসা নৌকা। রাণীনগর ও আদমদীঘি দুই উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার মধ্যে অবস্থিত রক্তদহ বিলের বোদলা-সান্দিড়া পাড়ঘাটে একটি ব্রিজের অভাবে শত শত বছর ধরে ভুগান্তিতে পড়ে আছে দুই উপজেলার প্রায় লাখো মানুষ। যেন দেখার কেউ নেই।

বর্তমান সরকারের আমলে সারাদেশে উন্নয়নের জোয়ার বইছে দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হচ্ছে। এর ধারবাহিকতায় এই রক্তদহ বিলের বোদলা-সান্দিড়া পাড়ঘাটে একটি ব্রিজ তৈরি করা হলে এ এলাকার মানুষ দুঃখ আর দূরর্দশা থেকে মুক্তি পাবে। খুলে যাবে ব্যবসা ব্যানিজ্যের দ্বার। কমে যাবে তাদের দুরের পথ ২৫ কিলোমিটার রাস্তা। সহজ হবে সর্ব সাধারণের যাতায়াত ব্যবস্থা বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, রাণীনগর উপজেলার পারইল ইউনিয়নের ও আদমদীঘির সান্তাহারের প্রত্যন্ত এলাকায় মধ্যে অবস্থিত রক্তদহ বিলের বোদলা-সান্দিড়া পাড়ঘাট। রক্তদহ বিলের এই পাড়ঘাট দিয়ে পাড়াপাড়ারে জন্য রাণীনগর উপজেলার পারইল ইউনিয়নের বেদলা, পালশা, তেবারিয়া ও পার্শ্ববর্তী আদমদীঘির সান্তাহারের পাশে কয়েটি গ্রাম মিলে ২০-২৫টি গ্রামসহ এলাকার আশে পাশের প্রায় লাখো মানুষ শত শত বছর ধরে সাধারণ নৌকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাড়াপাড় হয়। ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ দৈনন্দিন জীবনের নানা চাহিদা মেটানোর জন্য নওগাঁ জেলা সদর, বগুড়ার সান্তাহার জংশন শহর, রাজশাহী ও রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য শহরের সাথে একমাত্র যোগাযোগ ব্যাবস্থা ওই এলাকার মানুষের এই বোদলা-সান্দিড়া পাড়ঘাট।

বর্ষা মৌসুম শরু হলেই ওই এলাকার ভুক্তভুগি মানুষের মাঝে নেমে আসে দুর্ভোগ ছায়া। পড়াপাড়ের নৌকার জন্য অপেক্ষা করতে হয় ঘন্টার পর ঘন্টা। ফলে সময়মত গন্তব্যস্থানে পৌঁছাতে পারে না সহজেই কেউ। অনেকে সময় বাঁচাতে গিয়ে পারের নৌকার অপেক্ষা না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাঁতার দিয়ে এই বিলের পাড়ঘাট দিয়ে পার হয়ে থাকে অনেকেই। খড়া মৌসুমে থাকে হাটুপানি তখন নৌকা চলেনা হেটেই চলাচল করে জনগণ।

এ অবস্থা দূর্ভোগ থেকে রেহাই পেতে ভুক্তভুগিরা স্থানীয় এমপি ও মন্ত্রীদের দ্বারস্থ হয়েও কোন ফল পাচ্ছেনা। নির্বাচন এলেই এলাকার চেয়ারম্যান ও এমপি প্রার্থীরা উক্ত পাড়ঘাটে ব্রিজ করার প্রতিশ্রুতি দেন এবং পরক্ষণে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে না। রাস্তাঘাট ব্রিজ, কালভাটসহ সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন করা হলেও শত বছরের দূর্ভোগের শিকার এই এলাকার মানুষ গুলোর ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি এখনো।

রাণীনগর উপজেলার বোদলা গ্রামের মো: মাসুদ রানা, রাসেদ হোসেন ও আদমদিঘীর সান্দিড়া গ্রামের আবু সাঈদ সাগরসহ আরো অনেকেই জানান, একটি ব্রিজের অভাবে এ পারের মানুষ ওপারে যেতে চরম কষ্ট করতে হয়। এখানে শুধু একটি ব্রিজের কারনে দু-পারের মানুষের মাঝে আত্মীয়তার বন্ধনও তৈরী করতে চায় না। দীর্ঘ্য দিনের আমাদের এই সমস্যা বিষয়ে স্থনীয় এমপি’কে অবগত করেছি। বর্তমান সরকরের আমলেই রক্তদহ বিলের বোদলা-সান্দিড়া পাড়ঘাটে একটি ব্রিজ হলে আমাদের দুই পারের মানুষের মাঝে সেতুর বন্ধন তৈরী হবে।

এ ব্যাপারে রাণীনগর উপজেলা প্রকৌশলী মো: সাইদুর রহমান মিঞা জানান, ব্রিজের জন্য সংলিষ্ট কর্তৃপক্ষ কাছে প্রস্তাবপত্র পাঠানো হয়েছে। আসা করা যায় আগামী ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ব্রিজটির বরাদ্দ হবে।

এ ব্যাপারে নওগাঁ-৬ (রাণীনগর-আত্রাই) আসনের সংসদ সদস্য মো: ইসরাফিল আলম এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, ওই এলাকার মানুষের দাবী পূরণ হতে আর বেশী সময় লাগবে না। খুব অল্প সময়ের মধ্যে ব্রিজটি হবে।

অপর দিকে বগুড়া-৩ (আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট মো: নূরুল ইসলাম তালুকদার এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, চেষ্টা করা হচ্ছে স্থানীয় ইঞ্জিনিয়ার প্রকল্প দিলে কাজ হবে।

Print Friendly, PDF & Email

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 5
    Shares