Home / সারাদেশ / ফরিদগঞ্জ থেকে আমিরা বাজার, সড়ক নয়, যেন মরণ ফাঁদ!

ফরিদগঞ্জ থেকে আমিরা বাজার, সড়ক নয়, যেন মরণ ফাঁদ!

ক্রাইম প্রতিদিন, মশিউর রহমান, ফরিদগঞ্জ : চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ফরিদগঞ্জ থেকে আমিরা বাজার পর্যন্ত প্রায় ৬ কিলোমিটার আঞ্চলিক সড়কের বিভিন্ন অংশের পিচ কার্পেটিং উঠে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে খানা খন্দে। দেখলে মনে হয় এ যেন সড়ক নয়, মরণ ফাঁদ। এতে করে যেমন সময় অপচয় হচ্ছে তেমনি প্রতিদিন ছোট বড় দূর্ঘটনারও ঘটছে।

দূর্ঘটনা এড়াতে রুপসাসহ পূর্ব অঞ্চলের জনসাধারন ও যানবাহন চলাচল করছে এখন রুপসা কালিবাজার সড়ক দিয়ে, যা মালের ভাংতি হয়ে খেজুরতলা হয়ে ফরিদগঞ্জ-রায়পুর রোড দিয়ে। এতে করে যেমন সময় অপচয় হচ্ছে তেমনি বেশী ভাড়া গুনতে হচছে জনগনকে।

এছাড়া মাঝে মধ্যেই রাস্তায় নষ্ট হয়ে পড়ে থাকছে যানবাহন। এ কারণে সময় মতো গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছে না যানবাহন চালক ও যাত্রীরা। এতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে তাদের। অথচ গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক দিয়ে পূর্বাঞ্চল, রামগঞ্জ ও হাজীগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকার যানবাহন চলাচল করে প্রতিনিয়ত।

বঙ্গবন্ধু ডিগ্রী কলেজেের অনেক শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে ক্রাইম প্রতিদিনকে বলেন, আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এই সড়কে চলাফেরা করছি. সড়কটির এই অবস্থা জানার পরও কেউ এর বিহিত ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। সবাই যেন দেখেও না দেখার বান করছে।

কিছুদিন পরই শুরু হবে বর্ষাকাল, সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কের খানা খন্দে পানি জমে আরো বড় গর্তের সৃষ্টি হবে। তখন যানচলাচলতো দূরের কথা মানুষ হেঁটে চলাচল করতেও পারবে না।

এছাড়াও এই সড়ক দিয়ে রুপসা এলাকার বিদ্যাপীঠগুলো যেমন রুপসা আহম্মদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, রুপসা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রুপসা সিনিয়র মাদ্রাসা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিনিয়নত পোহাতে দূরভোগ। অনেক কষ্ট করে যাতায়াত করতে হয় তাদের।

সড়কটি দীর্ঘদিন ধরেই নাজেহাল অবস্থায় রয়েছে। জনগণের কাছে সড়কটি এখন মৃত্যু ফাঁদে পরিণত হয়েছে। সড়কটি যদি দ্রুত সংস্কার না করা হয় তাহলে জনগণের দুর্ভোগ বেড়েই চলবে। সড়কটির এই অবস্থায় হওয়ায় সিএনজি ও অটোরিস্কা চালকগন বেশী ভাড়া আদায় করছে, জীবনের ঝুকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে প্রতিনিহত।

কয়েকজন সিএনজি চালকের সাথে কথা হলে তারা ক্রাইম প্রতিদিনকে জানান, এই সড়কে যাতায়াত কালে রাস্তার ঝাঁকুনিতে অসুস্থ হয়ে পড়ে অধিকাংশ যাত্রী, এছাড়াও প্রায় বিকল হয়ে যায় যানবাহন, তাই বিকল্প সড়ক ব্যবহার করছি।

দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় সরকার দলীয় অনেকের কাছ থেকে শুনা যায় অচিরেই রাস্থার মেরামত করা হবে। কিন্তু তাও বছর অতিবাহিত হতে চলেছে। আশা সেইতো মরীচিকার মতই।

জনসাধারনের প্রত্যাশা অচিরেই সরকার বা প্রশাসন রাস্তাটি মেরামত করে জনদূর্ভোগ লাগব করবেন।

Print Friendly, PDF & Email

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 1.1K
    Shares