Home / আইন-আদালত / আদালতের নির্দেশে ঝোঁপে পাওয়া সেই নবজাতক এখন মা হোসনার কোলে

আদালতের নির্দেশে ঝোঁপে পাওয়া সেই নবজাতক এখন মা হোসনার কোলে

ক্রাইম প্রতিদিন, হুমায়ুন কবীর কেন্দুয়া : নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় আদালতের নির্দেশে ঝোঁপে পাওয়া সেই নবজাতক ‘স্বাধীন আহমেদ’ এখন মা দাবীদার হোসনা আক্তারের কোলে। ২৭দিন পর সন্তানকে কোলে পেয়ে আবেগ আপ্লোত হয়ে পড়েন হোসনা আক্তার। এ সময় রমজান মিয়া ও আবুল কাশেম নামে তার দুই আত্মীয় পাশে ছিলেন।

মঙ্গলবার (২৭মার্চ) বিকাল ৬টার দিকে নেত্রকোণা কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে নবজাতককে তোলে দেওয়া হয়। ২৭ দিন পর নবজাতককে তোলে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জাহানা রোজী। এ সময় এস.আই মোশাররফ হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম ও সাংদিকরা উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা বলেন, চিরাং ইউনিয়নের বানিয়াগাতী গ্রামের হোসনা আক্তারের আবেদনের প্রেক্ষিতে এবং আদালতের নিদের্শে শিশুটিকে হোসনা আক্তারের হাতে তুলে দেওয়া হয় এবং ১৫ দিন পর পর আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ মোতাবেক তাকে শিশুসহ হাজির হতে বলা হয়েছে। উল্লেখ্য ১লা মার্চ/১৮ তারিখ নেত্রকোণা কেন্দুয়া উপজেলার চিরাং ইউনিয়নের বানিয়াগাতী গ্রামে ভোর সাড়ে ৫টায় রাস্তার ঝোঁপের পাশে সদ্য ভূমিষ্ট নবজাতক এই শিশুটিকে পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা শিশুটির নাম স্বাধীন আহমেদ রেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেত্রকোণা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানেই শিশুটি এত দিন সরকারী তত্ত্বাবধানে ছিল।

এ ঘটনায় শিশুর মা দাবীদার হোসনা আক্তার বাদী হয়ে একেই গ্রামের মামুন নামে এক যুবককে প্রধান আসামী করে কেন্দুয়া থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে মামুন ও তার পরিবার পলাতক রয়েছে।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 30
    Shares