‘আমার স্বামী নির্দোষ, তিনি এসবে জড়িত ছিলেন না’

ক্রাইম প্রতিদিন : আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুর রহিমের স্ত্রী শিরিন রহিম তাঁর স্বামীকে নির্দোষ বলে দাবি করেছেন। শিরিন রহিম এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথাও বলেছেন।

আবদুর রহিম ২০০৪ সালে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) মহাপরিচালক ছিলেন।

আজ বুধবার দুপুরে এই মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পাশে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দীন আজ এই মামলার রায় ঘোষণা করেন। আদালত চত্বরের বাইরে ছিলেন আবদুর রহিমের স্ত্রী শিরিন রহিম।

রায় ঘোষণার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি আমলে তাঁর স্বামী এনএসআইয়ে থাকার কারণে তাঁকে আসামি করা হয়। মাঠপর্যায়ের একজন কর্মকর্তা ও গাড়ির চালককে ডাকা হলেও তাঁরা কোনো সাক্ষ্য দেননি বলে জানান। তিনি দাবি করে বলেন, তাঁর স্বামী কোনো অন্যায় কাজ করেননি।

শিরিন রহিম বলেন, ‘আমার স্বামী নির্দোষ। তিনি এসবের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। তাঁর বিরুদ্ধে কোনো সাক্ষীও ছিল না। এ রায়ের বিরুদ্ধে আমরা আপিল করব।’ এ ছাড়া তাঁর স্বামী ঘটনার সময়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বলেও দাবি করেন।

আজ সকাল নাজিমুদ্দিন রোডসহ আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর নিরাপত্তা বজায় রাখতে অবস্থান নেয়। আদালতে ঢোকার সব মুখেই ব্যারিকেড দিয়ে রাখে। দোকানপাটও সব বন্ধ ছিল।

আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ২১ আগস্ট চালানো গ্রেনেড হামলা মামলায় সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, হারিছ চৌধুরী, সাবেক সাংসদ কায়কোবাদসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন দেওয়া হয়েছে।

বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের সময় ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের জনসভায় গ্রেনেড হামলা হয়। এতে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী সে সময়ের মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী আইভি রহমানসহ ২২ জন মারা যান। আহত হন কয়েক শ।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 22
    Shares