Home / খেলাধুলা / এক ম্যাচে টাইগারদের যত রেকর্ড

এক ম্যাচে টাইগারদের যত রেকর্ড

ক্রাইম প্রতিদিন, ঢাকা : ২০০৬ সালের ৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে ম্যাচ দিয়ে শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ওয়ানডে অভিষেক ঘটে। এরপর এখানে ধারাবাহিকভাবেই হয়েছে ওয়ানডে ম্যাচ। সেই ধারাবাহিকতায় বুধবার (১৭ জানুয়ারি) শ্রীলঙ্কার ও জিম্বাবুয়ের ম্যাচে অনন্য মাইলফলক স্পর্শ করে ‘হোম অব ক্রিকেট’ নামে পরিচিত মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এটা এখন অতীত।

মিরপুরে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হাইভোল্টেজ এই ম্যাচেই একের পর এক ব্যক্তিগত কীর্তি গড়েছেন টাইগার ক্রিকেটাররা।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের ১০১তম ম্যাচে নিজেদের রাঙিয়ে নিয়েছেন তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, এনামুল হক বিজয়, সাব্বির রহমান এদিনে অনন্য এক কীর্তি গড়েছেন রান মেশিন মুশফিকুর রহিমও।

২০০৫ সালের মে মাসে লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে অভিষেক হয় মুশফিকুর রহিমের। এরপরের বছর রঙিন পোশাকেও অভিষেক হয় রহিমের। প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে এদিন ৩০০ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়লেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। মুশফিকও তার মাইলফলকের এই ম্যাচে ভক্তদেরকে হতাশ করেননি। ৫২ বলে ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৬২ রানের ইনিংস উপহার দিয়ে মিস্টার ডিপেন্ডেবল ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখলেন।

মুশফিকুর রহিম অভিষেকের পর থেকে এই ম্যাচ পর্যন্ত খেলেছেন ১৮০টি ওয়ানডে, ৫৮টি টেস্ট ও ৬১ টি-২০। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এই ম্যাচটি ছিল মুশফিকুর রহিমের ১৮১তম ওয়ানডে এবং ৩০০তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা প্লেয়ারদের ভেতর মুশফিকের পরই আছেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এ পর্যন্ত ২৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন। শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) বিশাল জয়ের ওই ম্যাচে ২৮৭টি ম্যাচ খেলে এই তালিকার তৃতীয় স্থানে আছেন তামিম ইকবাল। ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ২৭৩টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে রয়েছেন চতুর্থ স্থানে।

দেশ সেরা ওপেনার তামিম শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এদিন ম্যাচের শুরুতেই প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে সব ধরনের ফরম্যাট মিলিয়ে ১১,০০০ রান পূর্ণ করার কীর্তি গড়েন।

আর এর কিছু সময় পরেই শাহরিয়ার নাফিসের সঙ্গে যৌথ ভাবে দ্রুততম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডেতে ১,০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়।

বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও এই ম্যাচে স্পর্শ করেছেন ১০,০০০ রানের মাইলফলক।

এই ম্যাচে রেকর্ড গড়া থেকে বাদ যাননি সাব্বির রহমানও। বাংলাদেশের এই হাডিডার ডানহাতি ব্যাটম্যান ওয়ানডেতে ১,০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 8
    Shares