সংবাদ শিরোনাম
Home / সারাদেশ / গলায় ছুরি ধরে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ

গলায় ছুরি ধরে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ

ক্রাইম প্রতিদিন : ঢাকার ধামরাইয়ে এক কলেজছাত্রীর গলায় ছুরি ধরে তাকে গণধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই কলেজছাত্রীর মা বাদি হয়ে সুয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হাফিজুর রহমান সোরহাবের ভাতিজা মো. লিটন মিয়াসহ (২১) ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্ত লিটন সুয়াপুর এলাকার মো. সাগর আলীর ছেলে।

ওই ছাত্রীর মা সাংবাদিকদের বলেন, আমার মেয়ে ধামরাই সরকারি কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী। কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে সুয়াপুর বাজারের পূর্ব পাশে চাঁন মিয়ার বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে লিটনসহ আরও অনেকে।

এ সময় গলায় ছুরি চেপে ধরে গণধর্ষণের সেই দৃশ্য আক্তার, সেলিম মোবাইলে ধারণ করে। এ সময় আমার মেয়ের গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন এবং ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা। ধর্ষণের ভিডিও চিত্র এলাকার নারী-পুরুষের মোবাইলে ছড়িয়ে পড়েছে।

বিষয়টি জানার পর সুয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান সোহাবকে জানানো হয়। এরপর স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য গত রাতেও বৈঠকে বসার কথা ছিল।

এর আগে মেয়েকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ধামরাই থানার ওসি রিজাউল হক দিপু বলেন, এ ভিডিও ক্লিপটি যেসব মোবাইলের দোকানে রয়েছে, সেসব ব্যবসায়ীকে আইনের আওতায় আনা হবে। এছাড়া আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email