Home / বাংলাদেশ / সারাদেশ / জগন্নাথপুরে বিভিন্ন অভিযানে গ্রেফতার ১৪

জগন্নাথপুরে বিভিন্ন অভিযানে গ্রেফতার ১৪

ক্রাইম প্রতিদিন, জুয়েল আহমদ, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে মাদকসেবী, জুয়াড়ী ও অ¯্রসহ ডাকাত এবং বিভিন্ন অভিযানে গ্রেফতার ১৪। গ্রেফতারকৃতরা হলেন উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের পিতা-মৃত আঃ গনির ছেলে মনির হোসেন (৩৫), জগদীশপুর গ্রামের পিতা-মোঃ আইদ উল্লাহর ছেলে শিবলু মিয়া (৩৫), মৃত আরশ আলীর ছেলে সিরাজ মিয়া (৫৩), মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে ছমির উদ্দিন (৩০), মোঃ মজিবুর রহমানের ছেলে সালাতুর রহমান (২৯), মনু মিয়ার ছেলে জামাল মিয়া (৪৯)। সাদিপুর গ্রামের মোঃ মানিক মিয়ার ছেলে আশরাফ (২৭) ও আজাদ মিয়া (৩৩), আঃ খালিকের ছেলে মোঃ সাজ্জাদ মিয়া (৩৮), মৃত নছর আলীর ছেলে রউফ মিয়া (৪২), মৃত আঃ করিমের ছেলে কবির মিয়া (৩৪)। নাদামপুর গ্রামের জফাত উল্লাহর ছেলে হুসন মিয়া (৩৪)। ছাতক উপজেলার শক্তিয়ারগাঁও গ্রামের মৃত চেরাগ আলীর ছেলে সোহেল মিয়া (২৬), ভাতগাঁও গ্রামের মৃত আহমদ আলীর ছেলে দুলাল মিয়া (২৮)।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহ:বার এসআই মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় এসআই কবির উদ্দিন,এসআই গোলাম ফাত্তাহ মুর্শেদ চৌধুরী,এসআই অনুজ কুমার দাস,এসআই সাইফুর রহমান, এএসআইআবুল হোসেন, এএসআই মোঃ মোশাহিদ মিয়া, এএসআই প্রনয় নাল, এএসআই অরুন কুমার সিংহ সহ একদল পুলিশ অবৈধ মাদক উদ্ধার, গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ডিউটি করা কালে রাত অনুমান ১১.৫০ মিনিটের সময় জগন্নাথপুর থানাধীন কলকলিয়া ইউনিয়নের সাদিপুর ব্রীজের উপর হইতে ০১টি দেশীয় লোহার তৈরি পাইপ গান ও ০১ (এক) রাউন্ড কার্তুজ সহ ডাকাত মনির হোসেন (৩৫)কে গ্রেফতার করে।থানার এসআই হাবিবুর রহমান বাদি হয়ে ধারা-১৮৭৮ সনের অস্ত্র আইন (সংশোধীত-২০০২) এর ১৯-অ মামলা দায়ের করেন।
এদিকে সাদিপুর গ্রামের একই ফোর্স বিশেষ অভিযান করিয়া একই সাদিপুর এলাকা হইতে জুয়া খেলারত অবস্থায় শিবলু মিয়া (৩৫), সিরাজ মিয়া (৫৩),ছমির উদ্দিন (৩০),সালাতুর রহমান (২৯), জামাল মিয়া (৪৯), আশরাফ (২৭),আজাদ মিয়া (৩৩), মোঃ সাজ্জাদ মিয়া (৩৮), রউফ মিয়া (৪২), কবির মিয়া (৩৪), হুসন মিয়া (৩৪)। তাছাড়া মাদক সেবন ও মাদক নিজ হেফাজতে রাখায় সোহেল মিয়া (২৬) ও দুলাল মিয়া (২৮)কে গ্রেফতার করা হয়।

জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশিদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,উক্ত আসামীদেরকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 7
    Shares
x

Check Also

হত্যার পর নিহতের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ও সন্তান বিক্রি করতেন তারা

ক্রাইম প্রতিদিন ...