জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে মেয়র মাহফুজের সংবাদ সম্মেলন

ক্রাইম প্রতিদিন, ফরিদগঞ্জ : স্থানীয় সাংসদ, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও সাবেক মেয়রের বিরুদ্ধে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে নিরাপত্তার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্টমন্ত্রীর সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন চাঁদপুরে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহফুজুল হক।

মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পৌরসভায় মেয়রের কার্যালয়ে স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদিকদের লিখিত একটি নাতিদীর্ঘ বক্তব্যে এসকল কথা বলেন মেয়র।

মেয়র লিখিত বক্তব্যে দাবি করেন, গত ১৯ আগস্ট ২০১৮ খ্রি. ফরিদগঞ্জ থানায় নতুন পুলিশ সুপারের আগমন উপলক্ষ্যে থানা চত্তরে ওপেন হাউজ-ডে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আমি উক্ত অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে ফরিদগঞ্জ পশ্চিম বাজারে আল মমিন সুইটস এর সামনে দিয়ে আসার সময় একুশে টিভির সাংবাদিকগণের প্রশ্ন ও বাজারের ব্যবসায়ীদের দীর্ঘ দিনের অভিযোগের আলোকে সাংবাদিকদের আল মমিন সুইটসের পঁচা আবর্জনাগুলো কিভাবে ড্রেনে ফেলা হয় তা দেখাতে নিয়ে যাই। এসময় হাজী আব্দুল আউয়ালের ছেলে শরীফ হোসেন আখের, খলিলুর রহমান, বিল্লাল হোসেন, মমিন হোসেন ও সাইফুল ইসলাম রিপন পরিকল্পিতভাবে আমাকে মারার জন্যে দলবল নিয়ে আমার উপর আক্রমন করে।

এই ঘটনায় পরবর্তীতে বাজারে যেনো কোন হট্টগোল না হয় সেজন্য এসপি সার্কেল আফজাল হোসেন ও থানার ওসি মো. শাহ আলম উপস্থিত হয়ে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জনগণকে আশ^স্ত করেন। পরে বাজারের ওয়ান স্টার হোটেলের সামনে থেকে একটি মিছিল থানা মোড় পর্যন্ত যায়। এসময় কিছু উশৃঙ্খল যুবক আমার বিরুদ্ধে অশ্লীল শ্লোগান দেয়। পরবর্তীতে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ করলেও এর কোন কার্যকারিতা দেখছি না।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ‘পৌরসভার ৯ জন কাউন্সিলরের অনাস্থা প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসনের তদন্ত প্রতিবেদনে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার বিরুদ্ধে যেসকল অভিযোগ আনা হয়েছে তা আদৌ সঠিক নয়। এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে একুশে টিভির একুশের চোখে প্রচারিত সংবাদটি মিথ্যা।

এসময় মেয়র তার দায়িত্ব পালনকালে বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের তথ্য ও প্রচারিত সংবাদের বিভিন্ন দিকের ব্যাখা প্রদান করেন। সংবাদ সম্মেলনে পৌরসভার কর্মকর্তা, কর্মকচারী, ও কয়েকজন কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে ফরিদগঞ্জ পৌরসভার ৯জন কাউন্সিলর মেয়রের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে মেয়রের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। পরবর্তীতে মেয়র কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসনের কাছে পাল্টা অভিযোগ দেন এবং সংবাদ সম্মেলন করেন।

এ নিয়ে জেলা প্রশাসনের কার্যালয় অভিযোগের তদন্ত শেষে সংম্লিষ্ট দপ্তরে প্রতিবেদন জমা দেয়। এছাড়া একুশে টিভির অপরাধ ভিত্তিক অনুষ্ঠান একুশের চোখে ফদিগঞ্জ পৌরসভাকে নিয়ে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রচার করে।

এ প্রতিবেদনের পক্ষে-বিপক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক ও জনগনের মাঝে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 16
    Shares