Home / সারাদেশ / ত্রিশালে ১৮১ টি শহীদ মিনার উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী

ত্রিশালে ১৮১ টি শহীদ মিনার উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী

ক্রাইম প্রতিদিন, শফিউর রহমান সেলিম, ময়মনসিংহ : আজ ত্রিশালে সকাল ১১ ঘটিকায় উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা শিক্ষা অফিসের আয়োজনে বাগান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গণে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর মুক্তিযাদ্ধা এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান এমপি, ত্রিশাল উপজেলায় ১৮১টি সপ্রাবিতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও ভাষা শহীদদের স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনার এবং শতভাগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার হিসেবে মায়ের হাতের রান্না করা খাবার কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন।

মহৎ দুটি কাজের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষ্যে আয়োজিত মা সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী বলেন, সারা বাংলাদেশের মধ্যে ত্রিশাল একটি অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করল, যা দেখে অন্যান্য জেলা ও উপজেলা এ ধরনের মহৎ কাজে উৎসাহিত হয়ে তারাও এ ধরনের মহৎ কাজে এগিয়ে আসবেন বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

এ ছাড়াও মন্ত্রী উপস্থিত ১০-১২ জন মায়েদের কাছ থেকে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের লেখা পড়ার অবস্থা এবং অন্যান্য পরিবেশ সম্পর্কে বক্তব্য শোনেন।

উক্ত মহতী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মো: রমজান আলী, অতিরিক্ত মহাপরিচালক , প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ,স্থানীয় দুই সাবেক সংসদ আলহাজ্ব মাদানী ও মতিন সরকার, ইন্দু ভূষণ দেব, বিভাগীয় উপ পরিচালক, প্রাথমিক শিক্ষা, ঢাকা বিভাগ,মোহাম্মদ মোফাজ্জল হোসেন,প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, ময়মনসিংহ, আবু জাফর রিপন,উপজেলা নির্বাহী অফিসার,ত্রিশাল।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, ড. সুভাস চন্দ্র বিশ্বাস,জেলা প্রশাসক, ময়মনসিংহ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন দপ্তরের সরকারী কর্মকর্তা -কর্মচারী,বীর মুক্তিযোদ্ধা, উপজেলার সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার বৃন্দ,বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান ও সহকারী শিক্ষকবৃন্দ,সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এবং বিপুল সংখ্যক অভিভাবক।

এ প্রসঙ্গে ময়মনসিংহ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ মোফাজ্জল হোসেন বলেন, এত সুন্দর ও মহতী দুটি কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য ত্রিশাল উপজেলার উপজেলা শিক্ষা অফিসার নুর মোহাম্মদ সহ তাঁর সুযোগ্য Team কে ধন্যবাদ জানাই, সেই সাথে কৃতজ্ঞতা জানাই সকল এইউইও/প্রধান শিক্ষকগণকে যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করে শতভাগ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ এবং মিড ডে মিল কার্যক্রম বাস্থবায়ন করেছেন।

ত্রিশাল উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদের অভিব্যাপ্তি জানতে চাইলে তিনি বলেন,শতভাগ আন্তরিকতা ও ইচ্ছা থাকলে যে কোন কাজ করাই সম্ভব, আমি কোমলমতি শিশুদের মনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও ভাষা আন্দলনের আদর্শকে জাগরিত রাখার জন্য ত্রিশালের সকল শ্রেনী-পেশার মানুষের সহযোগিতাই এ রকম দুটি কাজ শতভাগ প্রাথমিক বিদ্যলায়ে করতে সক্ষম হই।
থানা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার তার বক্তব্যে জেলা প্রাথমিক অফিসার মোহাম্মদ মোফাজ্জল হোসেন,উপজেলা নির্বাহী অফিসার,ত্রিশাল,নির্বাচিত সকল স্তরের জন প্রতিনিধি, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারবৃন্দ, বিদ্যালয়গুলোর এসএমসির সভাপতি ও প্রধান এবং সহকারী শিক্ষকবৃন্দদেরকে ধন্যবাদ জানান ।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 10
    Shares