Home / সারাদেশ / দালালের খপ্পরে পড়ে মায়ানমারের কারাগারে দিন কাটছে আলা উদ্দিনের

দালালের খপ্পরে পড়ে মায়ানমারের কারাগারে দিন কাটছে আলা উদ্দিনের

ক্রাইম প্রতিদিন, আজাদ বিশ্বাস,মহেশপুর (ঝিনাইদহ) : ঝিনাইদহের কোটচছাদপুর উপজেলার বহরমপুর গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে আলাউদ্দিন ভাগ্যের চাকা ঘুরাতে দালালের খপ্পরে পড়ে পানি পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় মায়ানমারে বন্দিদশায় জীবন কাটাচ্ছে বিগত ৫ বছর। পরিবারের পক্ষ থেকে উদ্ধারের আবেদন জানিয়েছে।
পারিবারিক সূত্রে থেকে জানা গেছে, বিগত ৩/১০/১৩ইং তারিখে স্থানীয় দালাল কুশনা গ্রামের শুকুর শেখের ছেলে রেজাউল ইসলামের মাধ্যমে ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে মালয়েশিয়ায় চাকুরী দেওয়ার নাম করে বিদেশে নিয়ে যায়। দালাল চক্র তাকে অবৈধ পন্থায় পানি পথে নিয়ে যাওয়ার সময় মায়ানমার কোষ্টগার্ডের হাতে আটক হয়। বিষয়টি তারা জানতে পারে গত ২০/১০/১৫ইং তারিখে হঠাৎ তাদের বাড়ীতে পুলিশ আসে। পুলিশ তাদেরকে জানায় আলা উদ্দিন মায়ানমার কারাগারে আটক আছে। বিষয়টি তদন্তের জন্য ঢাকার এসবি স্মারক নং-২৮৩০/এসিও(টিম-১০, এসআই/ফারজানা) তাং-১৭/১০/১৫ইং তারিখে ঝিনাইদহ পুলিশ সুপারকে জানালে ঝিনাইদহ পুলিশের বিশেষ শাখা থেকে যাচাই-বাচাই করে একটি প্রতিবেদন দাখিল করে। অদ্যবধি পর্যন্ত তার কোন খোজ পাওয়া যায়নি। বিদেশ যাওয়ার পর থেকে আলা উদ্দিনের সাথে পরিবারের কোন যোগাযোগ নেই। অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটচ্চে তার পরিবারের। অন্যদিকে আলাউদ্দিনের জীবন প্রদীপ ধুকধুক করছে মায়ানমারের কারাগারে। এমতাবস্থায় তার স্ত্রী সুফিয়া খাতুন(ফুলমতি) ঝিনাইদহ জেলায় কর্মরত মানবাধিকার সংগঠন আরডিসি ও হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডারস ফোরাম বরাবর উদ্ধারের আবেদন জানালে সংস্থার পক্ষ থেকে বিভিন্ন জায়গায় উদ্ধারের জন্য আবেদন করেছে। ইতিমধ্যে একই অবস্থায় বিদেশ যাওয়ার সময় নিখোজ রয়েছে কোটচাঁদপুর থানার জগন্নাথপুর গ্রামের আব্দার রহমানের ছেলে তৌকির আহম্মেদ। তার স্ত্রী শারমিন খাতুন জানায়, একই দালালের মাধ্যমে একই সময় একই তারিখে ৩ লাখ টাকার বিনিময়ে বিদেশ যায়। কিন্তু অদ্যবধি পর্যন্ত তার কোন খোজ পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে মানবাধিকার কর্মী আরডিসির নির্বাহী প্রধান আব্দুর রহমান জানান, উক্ত ব্যক্তিদয়কে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 1
    Share