নোয়াখালীতে আগুনে সব কিছু পুড়ে ছাই, অক্ষত কুরআন!

ক্রাইম প্রতিদিন, নোয়াখালী : মহান আল্লাহর কুদরত দেখলো নোয়াখালীর সুবর্নচর উপজেলার পূর্বচরবাটা ইউনিয়নের ছমির হাট বাজারের স্থানীয় বাসিন্দারা। অগ্নিকাণ্ডে ওই বাজারের ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেলেও অক্ষত রয়েছে আল্লাহর বাণী পবিত্র কুরআন শরীফের কয়েকটি কপি। বর্তমানে কুরআনগুলো স্থানীয় মসজিদে সংরক্ষিত রয়েছে। বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিন গিয়ে জানা গেছে, বুধবার ভোর রাতে ছমির হাটবাজারে একটি চা দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় এবং মুহূর্তের মধ্যেই তা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা সুবর্ণচর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার আগেই অন্তত ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত দোকান গুলোর মধ্যে ১টি পাঠাগার, ১টি রেস্টুরেন্ট, ১টি ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী দোকান, ১টি বাইসাইকেলের দোকান, ১টি ক্লথ স্টোর, ১টি সেলুন দোকান স্থানীয় মসজিদের ২টি দোকান রয়েছে।

ছমিরহাট বাজারের ব্যাবসায়ী মো. ফিরোজ আলম জানান, আগুনে দোকানগুলো পুড়ে গেলেও বই দোকান ও মসজিদের দুটি দোকানে একাধিক কুরআন শরীফ ছিলো। আগুনে সব ভষ্মিভূত হলেও কুরআনগুলো ছিলো অক্ষত। যা একটি বিরল ঘটনা।

এদিকে ঘটনার পর সুবর্নচর উপজেলা চেয়ারম্যান আনম খায়রুল আলম সেলিমসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা ফয়েজ উল্যাহ ক্রাইম প্রতিদিনকে জানান, এটাই আল্লাহর কুদরত। আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেছেন-কুরআন আমার বাণী আর এটা সংরক্ষণের দায়ীত্বও আমার। এখানে আল্লাহ তার কথার প্রতিফলন দেখিয়েছেন।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 34
    Shares