পৌর কাউন্সিলর কোহিনুরের বাড়িতে মাদক বিরোধী অভিযান!

ক্রাইম প্রতিদিন, কক্সবাজার : কক্সবাজার’র টেকনাফ পৌরসভার নারী কাউন্সিলর কোহিনুরের বাড়িতে মাদক বিরোধী যৌত টাস্ক ফোর্সের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এসময় তার স্বামী যুবদল সভাপতি শাহ আলম পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

সূত্রে জানাগেছে,সোমবার(১০সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী শাহ আলমের বাড়িতে র‍্যাব,পুলিশ,আনসার, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর যৌত ভাবে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে।

অভিযানের নেতৃত্বে ছিলেন,মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের গোয়েন্দা পরিচালক মাসুম রব্বানী।এদিকে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে,আইনশৃংক্ষলা বাহিনীর উপস্থিতি টেরপেয়ে শাহ আলম কৌশলে বাড়ির পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে গেছে।

শাহ আলম পৌরসভার নারী কাউন্সিলর কোহিনুর আক্তারের স্বামী এবং স্থানীয় ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি।শাহ আলম এবং তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।এটি অত্যান্ত শক্তিশালী একটি পারিবারিক সিন্ডিকেট।চলতি বছর এপ্রিল মাসে চট্টগ্রাম গোয়েন্দা পুলিশ কর্তৃক আটক কৃত ইয়াবার চালানটি কাউন্সিলর কোহিনুর আক্তারের বলে তথ্য পাওয়া গেছে।উক্ত ঘটনায় কাউন্সিলর কোহিনুর,তার পিতা সুলতান,স্বামী ওয়ার্ড যুবদল সভাপতি সহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।এঘটনায় ইয়াবা বহনকারী কাভার্ড ভ্যানের ড্রাইভার অনোয়ার বর্তমানে হাজতে রয়েছে।

জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন সহকারী পরিচালক সৌমেন মন্ডল অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শাহ আলম একজন তালিকা ভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী। অভিযানের সময় বাড়িটি তালাবদ্ধ ছিলো।তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে একজন বয়স্ক মহিলার উপস্থিতি পাওয়া গেছে।বাড়িটি তল্লাশি চালিয়ে কিছুই পাওয়া যায়নি।তবে শাহ আলমকে আইনের আওতায় আনার যাবতীয় প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 43
    Shares