প্রতারকরা শুধুই প্রতারক, এরা কোন সমাজ, ধর্ম কিংবা দলের প্রতিনিধিত্ব করে না : ড. শাহাদাৎ

ক্রাইম প্রতিদিন, খন্দকার মো. তারেক, ঢাকা : নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের মধ্যে ‘ভোক্তা অধিকার আইন-২০০৯’ প্রচারের মাধ্যমে জনসচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়াধীন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহযোগীতায় আজ বিকাল ৪টায় ইউনিভার্সিটির নিজস্ব সেমিনার রুমে, ‘কনজুমার রাইটস প্রটেকশন ইন বাংলাদেশ’ শিরোনামে এক সেমিনারের আয়োজন করেন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি কতৃপক্ষ, যার মিডিয়া পার্টনার ছিলেন ক্রাইম প্রতিদিন। উক্ত সেমিনারের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়াধীন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের যুগ্ন সচিব ড. শাহাদাৎ হোসেন।

প্রধান অতিথি ড. শাহাদাৎ হোসেন ‘ভোক্তা অধিকার আইন-২০০৯’ এর বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বলেন, এই আইনের অধীন গৃহীত কোন অনুসন্ধান বা তদন্ত কার্যক্রমে কোন কর্মকর্তার যদি এইরূপ বিশ্বাস করিবার কারণ থাকে যে, কোন প্রকাশ্য স্থানে বা কোন চলমান যানবাহনে এই আইনের পরিপন্থী কোন পণ্য রহিয়াছে, তাহা হইলে তাহার অনুরূপ বিশ্বাস করিবার কারণ লিপিবদ্ধ করিয়া তিনি উক্ত পণ্য তল্লাশী করিয়া আটক করিতে পারিবেন এবং উক্ত পণ্যের সহিত সংশ্লিষ্ট অভিযুক্তকে গ্রেফতার করিতে পারিবেন৷
এই আইনে ভিন্নরূপ কিছু না থাকিলে, এই আইনের অধীন জারীকৃত সকল তদন্ত, পরোয়ানা, তল্লাশী, গ্রেফতার ও আটকের বিষয়ে ফৌজদারী কার্যবিধির সংশ্লিষ্ট বিধানাবলী প্রযোজ্য হইবে৷
(২) উপ-ধারা (১) এর অধীন প্রদত্ত নির্দেশ পালন করিতে ব্যর্থ হইলে অধিদপ্তরের পক্ষ হইতে উক্ত দোকান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ফ্যাক্টরী, কারখানা বা গুদাম তালাবদ্ধ করিয়া তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা হিসাবে সাময়িকভাবে বন্ধ করা যাইবে।
(৩) উপ-ধারা (১) ও (২) এর অধীন ব্যবস্থা গৃহীত হইবার পর অধিদপ্তর নিয়মিত শুনানী, পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও তদন্ত করিয়া ভোক্তা-অধিকারের বিষয়টি বিবেচনায় গ্রহণ করিয়া এবং প্রকৃতই এই আইনের কোন বিধানের লঙ্ঘনের ফলে ভোক্তা-অধিকার বিরোধী কার্য হইয়াছে কিনা উহা সঠিকভাবে নিরূপণ করিয়া প্রয়োজনীয় চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করিবে।
(৪) সেবা প্রদানকারী কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এই অাইনের অধীন কোন বিধান লঙ্ঘন করিয়া ভোক্তা-অধিকার বিরোধী কোন কার্য করিয়া থাকিলে মহাপরিচালক বা অধিদপ্তরের ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কর্মকর্তা উক্ত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে সংশ্লিষ্ট ব্যবসা সাময়িকভাবে স্থগিত রাখিবার নির্দেশ প্রদান করিতে পারিবে।

(৫) উপ-ধারা (৪) এর অধীন প্রদত্ত নির্দেশ পালন করিতে ব্যর্থ হইলে অধিদপ্তরের পক্ষ হইতে সেবা সম্পর্কিত উক্ত ব্যবসা সাময়িকভাবে বন্ধ করা যাইবে।

(৬) উপ-ধারা (৪) ও (৫) এর অধীন কোন সেবামূলক ব্যবসা সাময়িকভাবে স্থগিত করা হইলে অধিদপ্তর নিয়মিত শুনানী, পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও তদন্ত করিয়া ভোক্তা-অধিকারের বিষয়টি বিবেচনায় গ্রহণ করিয়া এবং প্রকৃতই এই আইনের কোন বিধানের লঙ্ঘনের ফলে ভোক্তা-অধিকার বিরোধী কার্য হইয়াছে কিনা উহা সঠিকভাবে নিরূপণ করিয়া প্রয়োজনীয় চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করিবে।

তিনি আরো বলেন, ভোক্তা অধিকার মানব অধিকার, ভোক্তার অধিকার নাগরিক অধিকার। পরিশোধিত মূল্যের সমপরিমান পণ্য ও সেবা পাওয়া প্রত্যেক ভোক্তার ন্যায্য অধিকার। কারো দয়ার দান নয়। কোন ভোক্তাই প্রতারিত হতে চান না। ব্যবসায়িরা প্রতারক নন। প্রতারনা আর ব্যবসা এক নয়। প্রতারকরা শুধুই প্রতারক। তারা কোন পরিবার, সমাজ, এলাকা, বংশ, ধর্ম কিংবা দলের প্রতিনিধিত্ব করে না, পরিচয়ও বহন করে না। প্রতারকরা শুধুই প্রতারক। এরা দুষ্কিৃতিকারী, এরা দেশ ও জাতীর শত্রু, এরা সমাজদ্রোহী, দেশদ্রোহী। প্রত্যেক ভোক্তারই নিজস্ব কিছু কর্তব্য রয়েছে। যেমনঃ
১। পণ্যের মোড়কে সংশ্লিষ্ট পণ্যের ওজন, পরিমান, উপাদান, ব্যবহার বিধি, সর্বোচ্চ খুচরা বিক্রয় মূল্য, উৎপাদনের তারিখ ইত্যাদি যাচাই করে নেয়া।
২। মূল্য রশিদ গ্রহনান্তে মালামাল সংগ্রহ করা।
৩। দ্রব্য বা সেবা সম্পর্কে পরিপূর্ণভাবে জেনে দ্রব্য ক্রয় করা।
৪। বিজ্ঞাপন না বুঝে দ্রব্য সংগ্রহ থেকে বিরত থাকা।
৫। সরকারী / পেশাদারী ট্রেডমার্ক সম্বলিত দ্রব্য ক্রয় করা।
৬। দ্রব্য বা সেবা সম্পর্কে অন্ধ বিশ্বাস পরিহার করা।
৭। দ্রব্য বা সেবা সম্পর্কে অভিযোগ যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট লিপিবদ্ধ করে প্রেরণ করা।
তাই প্রতিটি নাগরিকের পণ্য সম্পর্কে সচেতন না হলে নিজের অধিকার প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়। আপনি যদি প্রতারিত হয়েছেন বলে মনে করেন, তবে অবশ্যই আপনি কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ দায়ের করতে পারেন। তাই সকলকে নিজ নিজ দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হতে হবে।

উক্ত সেমিনারে আরো উপস্থিত ছিলেন, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির প্রভিসি ড. জি ইউ আহসান, ঢাকার পরিচালক, ও এন্ড এম, ইঞ্জিনিয়ার কাজী মমিনুল হক, ক্রাইম প্রতিদিন এর সম্পাদক এ জেড এম মাইনুল ইসলাম পলাশ এবং সহকারী বার্তা সম্পাদক- খন্দকার মোঃ তারেক সহ আরও অনেকে।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 497
    Shares