Home / আন্তর্জাতিক / প্রশ্নফাঁসের টাকায় প্রধান শিক্ষকের বাড়িগাড়ি, মুখ খুলে বিপাকে শিক্ষক-পরিদর্শক

প্রশ্নফাঁসের টাকায় প্রধান শিক্ষকের বাড়িগাড়ি, মুখ খুলে বিপাকে শিক্ষক-পরিদর্শক

ক্রাইম প্রতিদিন, ডেস্ক : হাইস্কুলের প্রশ্নফাঁসের টাকায় প্রধান শিক্ষক তিনটি বাড়ি ও দুটি গাড়ির মালিক হয়েছেন। তার এ দুর্নীতির তথ্য ফাঁস করে দিয়েছেন স্কুলের দুই শিক্ষক ও এক স্কুল পরিদর্শক।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক অভিযোগকারী পরিদর্শক ও দুই শিক্ষককে ক্ষমা চাওয়ার জন্য উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন।

এদিকে দশম শ্রেণির ফার্স্টবয়ের বাবা প্রশ্নফাঁসের অভিযোগকারী পরিদর্শক ও দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ময়নাগুঁড়ি সুভাষনগর হাইস্কুলে।

জানা গেছে, প্রধান শিক্ষক হরিদয়াল রায়ের প্রশ্নফাঁসের বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খোলেন শিক্ষক বিশ্বজিৎ রায় ও সম্রাট বিশ্বাস। একই অভিযোগ করেন পরিদর্শক এস আই বিশ্বনাথ ভৌমিকও।

হরিদয়াল রায়ের আইনজীবী তাদের কাছে ডাকযোগে উকিল নোটিশ পাঠান। এতে বলা হয়েছে, স্কুল পরিদর্শক ও দুই শিক্ষক সংবাদমাধ্যমে মিথ্যা বিবৃতি দিয়েছেন। তাই সাত দিনের মধ্যে তাদের নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। নাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানা গেছে, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মুখ খোলায় শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে পরিদর্শক বিশ্বনাথ ভৌমিককে। শোকজ করা হতে পারে তাকে।

ডাকযোগে নোটিস পাওয়ার কথা জানিয়ে বিশ্বনাথ বলেন, আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন।

এর আগে এ স্কুল পরিদর্শকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছিলেন প্রধান শিক্ষক হরিদয়াল রায়। কিন্তু অভিযোগ খারিজ করে তিনি বলেন, তিনি তার কর্তব্য পালন করেছেন।

এদিকে পরিদর্শক ও দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ময়নাগুড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন দশম শ্রেণির ফার্স্টবয়ের বাবা। তার অভিযোগ, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তার ছেলের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা চলছে। এটা একটা চক্রান্ত।

উল্লেখ্য, পরীক্ষা শুরুর নির্ধারিত সময়ের আগেই মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্রের প্যাকেট খোলার অভিযোগ উঠেছে ময়নাগুড়ি সুভাষনগর হাইস্কুলের বিরুদ্ধে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, প্রধান শিক্ষক হরিদয়াল আগেভাগে প্রশ্ন খুলে বিশেষজ্ঞ শিক্ষক-শিক্ষিকাদের দিয়ে তার উত্তর লিখে তার ছবি তুলে ফার্স্টবয়কে পাঠাতেন।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 12
    Shares