Home / বাংলাদেশ / জাতীয় / বিশেষ প্রতিবেদন / বাংলাদেশে অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা : ভারতীয় গণমাধ্যম

বাংলাদেশে অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা : ভারতীয় গণমাধ্যম

ক্রাইম প্রতিদিন, ডেস্ক : সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দল বিএনপির প্রধান খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা একটি দুর্নীতির মামলার রায়কে সামনে রেখে বাংলাদেশে অস্থিরতা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। ‘বাংলা অন এডজ অ্যাহেড অব খালেদা রুলিং’ শীর্ষক রিপোর্টে এ খবর দিয়েছে ভারতের অনলাইন দ্য টেলিগ্রাফ। এতে আরো বলা হয়েছে, এ রায়কে কেন্দ্র করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ একটি বিশেষ নোটিশ জারি করেছে। তাতে বুধবার স্থানীয় সময় ভোর চারটা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত যেকোনো রকম জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই নোটিশে বলা হয়েছে, গোয়েন্দা সংস্থাগুলো সতর্ক করেছে যে, জনশৃংখলায় অস্থিরতা সৃষ্টি হতে পারে। তাই নিরাপত্তার জন্য সবার সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় দুই লাখ ৫২ হাজার ডলার আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে। এতে আসামি করা হয়েছে তার বড় ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ মোট ৬ জন। ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, যদি এ মামলায় খালেদা জিয়া দোষী সাব্যস্ত হন তাহলে তাকে সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হতে পারে।

এর অর্থ হলো এ বছরের শেষে দেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। সেই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে অযোগ্য হতে পারেন। এর আগে ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করেছিল বিএনপি। তারা আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রত্যাশা প্রকাশ করেছে।

তবে বিএনপি বলছে, আগামী নির্বাচনে তাদের নেতা যাতে অংশ নিতে না পারেন সে জন্যই এই অভিযোগ সাজানো হয়েছে। এ অবস্থায় তিনি যদি শাস্তিপ্রাপ্ত হন তাহলে রাজপথ দখলে নেয়ার হুমকি দিয়েছে তারা।

তবে আওয়ামী লীগ বলেছে, খালেদা জিয়া দোষী কিনা তা প্রমাণ হবে আদালতে। যদি রায় নিয়ে বিএনপি বিক্ষোভ শুরু করে তাহলে নজরদারি চালাতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে খালেদা জিয়া তার নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, অনুগ্রহ করে এমন কোনো বোকামি করবেন না যাতে দল বিপদে পড়ে। ঐক্যবদ্ধ থাকবেন।

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 17
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.