‘বাংলাদেশে ইলেকশন করার সুন্দর পরিবেশ আছে’

ক্রাইম প্রতিদিন : বর্তমানে বাংলাদেশে ইলেকশন করার মতো সুন্দর একটা পরিবেশ আছে এবং এই নির্বাচন কমিশন সেই ইলেকশন করতে পারবে বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার(২৯ সেপ্টেম্বর) নিউইয়র্কে ভয়েস অব আমেরিকাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, কিছুদিন আগে তিনটা সিটি করপোরেশন ইলেকশন হলো। দুটি আওয়ামী লীগ এবং একটাতে বিএনপি জিতেছে। এটা কি প্রমাণ করে না যে দেশে ইলেকশন করার মতো যথেষ্ট সুন্দর পরিবেশ আছে?

তিনি বলেন, যদি আপনি এই ইলেকশনগুলো যাচাই-বাছাই করেন এবং পরিস্থিতি দেখেন, তবে আপনাকে স্বীকার করতেই হবে যে দেশে ইলেকশন করার মতো সুন্দর একটা পরিবেশ আছে। জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিচ্ছে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সম্প্রতি অবৈধ অভিবাসীদের বাংলাদেশে পাঠানো সম্পর্কিত আলোচনায় কী ভাবছেন জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটা এখন তাদের পলিটিকস। আমি তো মনে করি না যে আমাদের কোনও অবৈধ বাংলাদেশি সেখানে আছে।

তিনি বলেন, আমাদের অর্থনীতি যথেষ্ট শক্তিশালী, যথেষ্ট মজবুত। বাংলাদেশিরা সেখানে গিয়ে কেন অবৈধ হবে? কাউকে অবৈধ বা কাউকে বৈধ বলা তাদের ব্যাপার। তবে বিষয়টা নিয়ে ভারতের প্রাইম মিনিস্টারের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, এমন কোনও চিন্তা তাদের নেই।

এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তরের পর জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে কিছু লোককে খুশি করে তাদের সমর্থন নিতে ব্যাংক খুলে যাকে-তাকে ঋণ দেয়। তারা ঋণ ফেরত দিল কি দিল না, সেটা দেখেনি। এভাবে এদেশে ঋণখেলাপির কালচার শুরু হয়।

সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা এবং দেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, কাজ করতে গেলে কিছু কিছু ক্ষেত্রে যে সমস্যাগুলো আসে, সেগুলো হয়তো থাকতে পারে। কিন্তু সেটা কি অর্থনৈতিক অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করতে পারছে? তা তো পারছে না।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ভালো উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, আমেরিকান পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও তারর সঙ্গে দেখা করেছেন। এছাড়া প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে কথা হয়েছে তার।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন