মাদক ব্যবসায়ীদের আড়াল করতেই নেতাকর্মীদের তালিকায় জড়ানো হচ্ছে

ক্রাইম প্রতিদিন, মোঃ কামরুজ্জামান সেন্টু : প্রকৃত মাদক ব্যবসায়িদের আড়াল করতেই রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাদক ব্যবসায়ি প্রমাণে উঠে পড়ে লেগেছেন ওই ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ সভাপতি মোহাম্মদ উল্যাহ ও ৭ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য শাহাদাত হোসেন।

ব্যক্তিগত শত্রুতা চরিতার্থ করতেই দলীয় নেতৃত্বের সুযোগে নিজ নেতাকর্মীদের উপর নির্যাতনের খড়গ চাপিয়ে প্রকৃত মাদক ব্যবসায়িদের আড়াল করতেই তারা এহেন কার্যকলাপ চালাচ্ছেন বলে দাবি করেছেন ওই ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মনির হোসেন বাচ্চু। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মোহাম্মদ উল্যাহর নির্দেশনায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। যাতে ওই ওয়ার্ডের গুটিকয়েক মাদক ব্যবসায়ির নামের সাথে আমি ও দলের ৭/৮ জন নিরীহ নেতাকর্মীর নাম জুড়ে দেয়া হয়। পরবর্তীতে ওই অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় একটি দৈনিকে আমাদের মাদক ব্যবসায়ি সাজিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়।

প্রকৃতপক্ষে আমিসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মোহাম্মদ উল্যাহ ও ইউপি সদস্য শাহাদাত হোসেনের স্বেচ্ছাচার, অনিয়ম ও দলীয় পরিচয় ব্যবহার করে অনৈতিক সুবিধা গ্রহনের বিরুদ্ধে কথা বলায় তারা উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে এ অভিযোগ করিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, আমরা দলীয় নেতাকর্মীরা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে যখন মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক জনমত গড়ে তোলার কাজে নিজেদের সম্পৃক্ত করেছি তখনি এ অপপ্রয়াস প্রকৃত মাদক ব্যবসায়িদের কাজে সহায়ক হিসেবে কাজ করছে। প্রকৃত মাদক ব্যবসায়িদের আটক ও দলের নিরীহ নেতাকর্মীদের এই অপপ্রচারের হাত হতে বাঁচাতে তিনি স্থানীয় প্রশাসন ও দলের ঊর্ধ্বতন নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে মোঃ আব্দুস সাত্তার, মোঃ হোসেন, মোঃ সফিউল্লাহ ও মোঃ নুরুল ইসলাম সহ এলাকার অর্ধশত গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন