Home / সারাদেশ / ময়মনসিংহে প্রতারণা মামলায় প্রধান শিক্ষকসহ গ্রেপ্তার ৬

ময়মনসিংহে প্রতারণা মামলায় প্রধান শিক্ষকসহ গ্রেপ্তার ৬

ক্রাইম প্রতিদিন, শফিউর রহমান সেলিম, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে প্রতারণা মামলার আসামি উপজেলার রৌহা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মারুফ আহমেদসহ পৃথক অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার তাদেরকে ময়মনসিংহ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রৌহা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মারুফ আহমেদ ও উথুরী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াসমিন সুলতানা পপির যোগসাজসে গত এসএসসি পরীক্ষার পূর্বে ৫৩ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে রেজিস্ট্রেশনসহ এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের কথা বলে মোটা অংকের টাকা আদায় করেন। কিন্তু পরীক্ষার সময় উল্লিখিত শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র না আসায় তারা কেউ পরীক্ষা দিতে পারেনি।

পরে বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা চলাকালে কেন্দ্রের বাইরে বিক্ষোভ মিছিল, সড়ক অবরোধসহ নানা কর্মসূচি পালন করে। এ সময় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের হাত থেকে বাঁচতে রৌহা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মারুফ আহমেদ ও উথুরী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াসমিন সুলতানা পপি গা ঢাকা দেন। এ ঘটনায় গত ১ ফেব্রুয়ারি অভিভাবক মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী বাদী হয়ে রৌহা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মারুফ আহমেদ ও উথুরী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াসমিন সুলতানা পপির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে গফরগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেন।

আজ শুক্রবার সকালে গফরগাঁও থানা পুলিশ ওই মামলার পলাতক আসামি মারুফ আহমেদকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।
এ ছাড়া গফরগাঁও থানা পুলিশ পৃথক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি রৌহা গ্রামের রাজু মিয়া, জাহিদ আল হাসান পলাশ, রসুলপুর গ্রামের শান্ত মিয়া, উথুরী গ্রামের সালেহা বেগম এবং ত্রিশাল উপজেলার ফাতেমা নগর এলাকার রিপন মিয়াকে ছিনতাইয়ের অভিযোগে গফরগাঁও রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।

গফরগাঁও থানার এসআই (সেকেন্ড অফিসার) হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘আটকদের ময়মনসিংহ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 12
    Shares