Home / আন্তর্জাতিক / সংবাদ সম্মেলনে নারী সাংবাদিকের গাল চাপড়ে দিয়েছেন কর্মকর্তা

সংবাদ সম্মেলনে নারী সাংবাদিকের গাল চাপড়ে দিয়েছেন কর্মকর্তা

ক্রাইম প্রতিদিন, ডেস্ক : সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন করেছিলেন এক নারী সাংবাদিক। প্রশ্নের জবাব না দিয়ে ওই নারীর গাল চাপড়ে দিয়েছে ৭৮ বছর বয়সী এক কর্মকর্তা। এ নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের রাজ্যপাল বানওয়ারিলাল পুরোহিত এ ঘটনার জন্ম দিয়েছেন।

ওই রাজ্যের বিরুদ্ধনগর কলেজের এক নারী শিক্ষক শিক্ষার্থীদের বেশি নম্বর পাওয়ার জন্য মাদুরাই কামরাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার পরমার্শ দিয়েছিলেন।

এ সংক্রান্ত একটি অডিও টেপ সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। এতে রাজ্যপাল বানওয়ারিলালের কথাও শোনা গেছে।

মঙ্গলবার রাজভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে বিরুদ্ধনগর কলেজের ঘটনা নিয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন রাজ্যপাল বানওয়ারিলাল।

সংবাদ সম্মেলেনের শেষের দিকে একটি সাময়িকীর এক নারী সাংবাদিক রাজ্যপালকে শিক্ষিকার অডিও নিয়ে একটি প্রশ্ন করেন। বানওয়ারিলাল প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে নারী সাংবাদিকের গাল চাপড়ে দেন।

পরে ওই সাংবাদিক টুইটারে লেখেন, আমি রাজ্যপালকে সাংবাদিক বৈঠক শেষে একটি প্রশ্ন করি। কিন্তু তার উত্তর না দিয়ে, তিনি আমার অনুমতি না নিয়ে গাল চাপড়ে দেন।

ওই নারী বলেন, ৭৮ বছরের রাজ্যপালের কাছে হয়তো এটি দাদাসুলভ আচরণ। কিন্তু বিষয়টিকে আমি মোটেই ভালোভাবে নিইনি।

এদিকে নারী সাংবাদিকের গাল চাপড়ে দেয়ার ঘটনা প্রকাশ্যে আসার সঙ্গে সঙ্গেই বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

স্থানীয় রাজনৈতিক দল ডিএমকের রাজ্যসভার সাংসদ কানিমোঝি এ ঘটনার সমালোচনা করে টুইট করেন।

এতে তিনি লেখেন- যদিও ধরে নেয়া যায়, এই আচরণের পেছনে কোনো খারাপ অভিসন্ধি ছিল না, কিন্তু একজন সাংবিধানিক পদাধিকারীর কোনো কাজ করার আগে চিন্তাভাবনা করা উচিত। শুধু একজন নারী সাংবাদিক নন, যে কোনো অপরিচিত ব্যক্তিকেই বিনা অনুমতিতে ছোঁয়া অনুচিত।

ডিএমকের কার্যনির্বাহী সভাপতি এমকে স্তালিন ঘটনাটিকে অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বলে আখ্যা দিয়েছেন।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 38
    Shares