Home / বাংলাদেশ / সারাদেশ / সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ভূট্টোকে প্রধান আসামী করে ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা!

সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় ভূট্টোকে প্রধান আসামী করে ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা!

ক্রাইম প্রতিদিন, কক্সবাজার : কক্সবাজার’র টেকনাফে ইয়াবা ব্যবসায়ী ভূট্টো বাহিনী কর্তৃক দোকান লুট-পাট ও বসত ঘরে সশস্ত্র হামলার ঘটনায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

গেলো ৯ জুলাই উপজেলার ৩নং সদর ইউনিয়নের চকবাজার এলাকায় দোকান ভাংচুর এবং নাজির পাড়ায় বিধবার বসত ঘরে হামলার ও গুলাগুলির ঘটনায় টেকনাফ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।যার মামলা নং-২০/৩৪২।হাফেজ মৌলানা নূরুল হক বাদী হয়ে ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন বলে টেকনাফ থান সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের তালিকা ভূক্ত ইয়াবা কারবারী ও আলোচিত সাংবাদিক হামলার প্রধান হোতা এজাহার মিয়ার পুত্র নূরুল হক ভূট্টোকে প্রধান আসামী করা হয়েছে।মামলার এজাহার মতে,নুর মোহাম্মদ উরফে মংগ্রী,নুরুল আবছার উরফে খোকন,নুরুল আলমের পুত্র বেলাল(৩২),মোঃ হেলাল উরফে ডাকাত হেলাল(২১),মোঃ কামাল উরফে ডাকাত কামাল,জালাল(২৫),আবছার উরফে ডাকাত আবছার,এজাহার মিয়ার পুত্র নুরুল ইসলাম নূরু(২৫),নূর মোহাম্মদের পুত্র আব্দু শুক্কুর উরফে ইয়াবা শুক্কুর(৩৪),কালামিয়ার পুত্র মোঃ নবী উল্লাহ (৩২),মকবুল আহমদের পুত্র নুরুল আলম(৩৫) সহ আরো অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জন ব্যক্তিকে আসামী করে মামলা রুজু করা হয়েছে।তবে ঘটনার ৩দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ কাউকে আটক করতে ব্যর্থ হয়েছে।

টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ বাবু রঞ্জিত বড়ুয়া সন্তাসীদের পাকড়াও করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান।উল্লেখ্য ভূট্টো বাহিনীর হাতে বিগত সময়ে কক্সবাজার’র কয়েকজন সিনিয়র সাংবাদিক মারাত্বক ভাবে আহত হয়েছিলেন।এদের হাতে নাজির পাড়া ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকা সহ উপজেলার কোন লোক নিরাপদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রশাসনের কয়েকজন ব্যক্তি।এদের ভারী অগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সূত্র।

অপর দিকে বিগত ৫ তারিখ বিকেল বেলা একই এলাকার ইয়াকুব(২৮) নামের একজন স্বনামধন্য ক্রীড়া সংঘটক কে নুরুল আলম উরফে মংগ্রী তার বাহিনী হত্যার উদ্দোশ্যে উঠিয়ে নিয়ে যায়।পরে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়ে গেলে মারধর করে ছেড়ে দিয়েছে।এলাকায় এদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললেই বিপদ নেমে আসে বলে জানালেন উক্ত যুবক।তাই এলাকার শান্তি স্থীতিশীল করতে এদের গ্রেফতার অত্যান্ত জরুরী,অন্যতায় এদের প্রতিরোধে এলাকাবাসী যে কেন মূহুর্থে রক্তক্ষয়ী সংঘাতের আশংকা প্রকাশ করেছেন।

এই মুহূর্তে অন্যরা যা পড়ছে

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 10
    Shares