Home / সারাদেশ / সাহায্যের জন্য আবেদন / সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরতে চায় শফিউল

সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরতে চায় শফিউল

ক্রাইম প্রতিদিন, মোঃ ইসমত দ্দোহা : মুখে চিরচেনা হাসিটা এখনো লেগে আছে। লাঠি ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকার আপ্রাণ চেষ্টা। কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে, তবুও বন্ধুর সাথে একটু মনের কথা বলার আকুতি।

মোঃসফিউল, পিতা মৃত, আবদুল হাসেম, বড় বল্লভপুর (রশিদ মাস্টারের বাড়ি) বরইতলা, চন্দ্রগন্জ, লক্ষ্ণীপুর। গত আট বছর ধরে সফিউল অসুস্থ। মাএ বএিশ বছর বয়সে স্ট্রোক করে, শরীরের এক পাশ প্যারালাইসিসে আক্রান্ত, স্বাভাবিক জীবন যাপন করাটা তার ও পরিবারের জন্য বর্তমানে অনেক কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সুস্থ থাকাবস্থায় ঢাকার একটি ব্যাগের কারখানায় কাজ করতো, ভালোই চলছিল সংসার জীবন, হঠাৎ এক ঝড়ে এলোমেলো হয়ে গেল সবকিছু। বর্তমানে তাঁর চিকিৎসা ব্যয় মেটানোর মত পারিবারিক ভাবে আর সম্ভব হচ্ছেনা। অসুস্থ হওয়ার পর হতেই চিকিৎসা করাচ্ছেন ঢাকার গ্রীন হসপিটাল ও সি আর পি হসপিটালে, ডাক্তারের ভাষ্যমতে নিয়মিত এক নাগাড়ে চিকিৎসা ও ভালো নার্সিং করাতে পারলে সুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা আছে, কিন্তু আর্থিকভাবে সমস্যার কারণে সম্ভব হচ্ছেনা। ঢাকায় থাকার মতো তেমন পরিস্থিতিও নেই পরিবারের।

তাইতো তার হয়ে তার সহপাঠী, বন্ধু মোঃ ইসমাইল হোসেন ক্রাইম প্রতিদিনকে জানায়, আমাদের সমাজে, বন্ধু মহলে অনেকেই বর্তমানে আর্থিক ভাবে ভালো অবস্থায় আছে, সবাই যদি একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন, অবশ্য পরিচিত অনেকেই ইতিমধ্যে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, তবে সমাজের বিওশালী, ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ ও সরকারি ভাবে যদি সবার সক্রিয় সহযোগিতা পাওয়া যায় তাহলে হয়তো বেঁচে যেতে পারে অসহায় সফিউল ও তার পরিবার।

তবে আট বছর বয়সী শিশু কন্যাই এখন সফিউলের বড় চিন্তার, স্হানীয় বড় ভল্লবপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাএী। মেয়েটির অনাকাঙ্ক্ষিত ভবিষ্যতের চিন্তা করেই দু ‘চোখে ঘুম আসেনা সফিউলের। সুস্থ হয়ে সবার মাঝে ফিরে আসতে চায় সফিউল, প্রয়োজন একটু সকলের সহযোগিতা।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 29
    Shares