Home / সারাদেশ / সৈয়দপুরে রেলকোয়াটার দখলের চেষ্টা, ভাংচুর, লুটপাট

সৈয়দপুরে রেলকোয়াটার দখলের চেষ্টা, ভাংচুর, লুটপাট

ক্রাইম প্রতিদিন, মোঃ জহুরুল ইসলাম খোকন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) : রেল কোয়াটার বরাদ্দের কাগজ নিয়ে মোক্তার নামের রেলওয়ের ওয়েম্যান পদে কর্মরত এক ব্যক্তির নেতৃত্বে সৈয়দপুরের কয়েকজন উশৃঙ্খল যুবক অপর এক রেল কোয়াটারে বসবাসরত পরিবারকে উচ্ছেদ করার চেষ্টা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভাংচুর করা হয়েছে আসবাবপত্র। লুটপাট করা হয়েছে ৩ ভরি সোনা গহনা, ৩০ ভরি রুপাসহ নগদ ২ লক্ষ টাকা। গতকাল সোমবার শহরের গার্ডপাড়া রেলমাঠ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর পরই সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদুল মোমিন ঘটনাস্থল এসে ওই ঘটনার ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

অভিযোগে বলা হয়, ইমরান জুয়েলার্সের মালিক ইমরান হোসেন সহ তার পরিবার শহরের গার্ডপাড়া রেলমাঠ সংলগ্ন ৭৭৪ নং রেলকোয়াটারে প্রায় ৩০ বছর থেকে বসবাস করে আসছেন। কিন্তু গতকাল সোমবার রেলওয়ের কর্মকত মোক্তার নামের ওই ব্যক্তিটি ৬৩৪ নং রেল কোয়াটার বরাদ্দ নেওয়ার কাগড় পত্র নিয়ে কয়েকজন উৎশৃঙ্খল যুবকদের দ্বারা ৭৭৪ নং কোয়াটারটি দখলের চেষ্টা চালায়। এসময় ওই কোয়াটারে বসবাসরত ইমরান জুয়েলার্সের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী পারুল বেগম বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে ওই বাড়ীতে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়। এক পর্যায়ে ঘটনাস্থলে এলাকাবাসীসহ উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদুল মোমিন পৌছানোর আগেই দখলবাজরা ওই বাড়ীতে থাকা ৩০ ভরি রুপা, ৩ ভরি স্বর্ণালংকারসহ নগদ ২ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদুল মোমিন বলেন, দখলবাজরা যে দলেরই হউক না কেন কারো ছাড়া নেই। ঘটনাটির কঠোর ব্যবস্থা নিবেন বলে তিনি মন্তব্য করেন।

রেলের উপ-সহকারী প্রকৌশলী তহিদুল ইসলাম বলেন, কোয়াটার বরাদ্দ নেওয়া মানে অবৈধভাবে দখল নয় এর জন্য রয়েছে আইন। আইনের তোয়াক্কা না করে যদি কেউ আইন হাতে নিয়ে অপরাধ করে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে বলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান।

আরও পড়ুন.......

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন
  • 28
    Shares